কলকাতা বিমানবন্দর থেকে ১৮ জন যুবককে উদ্ধার করল বিধাননগর কমিশনারেটের এনএসসিবিআই থানার পুলিশ। গত ১৬ সেপ্টেম্বর হরিয়ানার বাসিন্দা নরেশ কুমার এনএসসিবিআই থানায় এসে জানায় তার ছেলে রাহুল কুমার আগস্ট মাসের ২৮ তারিখ থেকে নিখোঁজ। কলকাতায় আছে। এরপরে এনএসসিবিআই থানার পুলিশের কাছে সেপ্টেম্বর মাসে ইমেল মারফত অভিযোগ করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে পুলিশ দমদম ও এয়ারপোর্ট সংলগ্ন এলাকা থেকে সুরেশ সিনহা, রাকেশ প্রসাদ সিনহা, ধীরাজ দাসকে গ্রেফতার করে। এরপরেই আজ ভোর রাতে পুলিশ কলকাতা বিমানবন্দর থেকে ১৮ জন উদ্ধার করে। পুলিশের দাবি, এদের থেকে মোটা অঙ্কের অর্থ নিয়ে এদেরকে আমেরিকা নিয়ে যাবে বলে কলকাতায় নিয়ে আসে। এরপরে এদের আটকে রেখে এদের পরিবারের থেকে টাকা আদায় করে। রাহুলের ক্ষেত্রে তার পরিবারের থেকে ৪৯ লক্ষ টাকা দাবি করে। এরমধ্যে রাহুলের বাবা ৪০লক্ষ টাকা দেয়। কিন্তু তারা জানতে পারে তাদের ছেলে কলকাতায় রয়েছে এরপরে ই এনএসটিবিআই থানার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয় পুলিশ তদন্তে জানতে পারে রাহুলসহ ১৮ জনকে ইকোপার থানার অন্তর্গত ইকো আরবান ভিলেজের বাসিন্দা ডাঃ গৌর চন্দ্র বিশ্বাস বাড়িতে আটকে রাখা হয়েছিল এবং তাদের ভয় দেখিয়ে আমেরিকার নম্বর ব্যবহার করে তাদের বাড়িতে ফোন করে বলানো হত তাদের ছেলে ভালো আছে। এটি একটি বড়সড়ো রেকেট এমনটাই দাবি বিধাননগর কমিশনারেটের এই র‍্যাকেটের বাকি সদস্যদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে বিধাননগর কমিশনারেট।

 

শ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × 3 =