শিক্ষা ক্ষেত্রে দুর্নীতি নিয়ে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। এরই মধ্যে তৃণমূল কাউন্সিলর এর নাম ভুয়ো শিক্ষকের তালিকায় প্রকাশ পাওয়াকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়ালো এলাকায়।সংসদের তরফ থেকে হাইকোর্টে দেওয়া তালিকায় নাম রয়েছে রাজপুর সোনারপুর পৌরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কুহেলী ঘোষের।২০১৮ সালে সোনারপুর থানার অন্তর্গত চৌহাটি হাইস্কুলে ইতিহাসের শিক্ষিকা হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। এবার সেই শিক্ষিকার নামে রয়েছে পর্ষদের দেওয়া ভুয়ো শিক্ষকের তালিকায়। যা নিয়ে যথেষ্ট সরগরম এলাকার রাজনীতি। বিজেপি নেতা তথা জেলা পরিষদের সদস্য রঞ্জন বৈদ্যর দাবি, তৃণমূলের আমলে সবকিছুই ভুয়ো।ডাক্তার থেকে শিক্ষক এই ভুয়োদের তালিকায় সবই আছে।এই ঘটনায় তৃণমূল নেতৃত্ব এক হাত নিয়েছেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীও।যদিও এ বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমের সামনে মুখ খুলতে চাননি পুরমাতা কুহেলী ঘোষ।তবে আইনি পথেই তিনি এ বিষয়ে মোকাবিলা করবেন বলে জানিয়েছেন।সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন “শুধু কাউন্সিলার নয়,মন্ত্রীর মেয়েও জড়িত। এরসাথে কালীঘাট, নবান্নও রয়েছে বলে তার অভিযোগ”। তৃণমূলের যাদবপুর ডায়মন্ডহারবার সাংগঠনিক জেলার সভাপতি শুভাশিস চক্রবর্তী বলেন কুহেলি শিক্ষিত ও ভালো মেয়ে যদিও এই বিষয়টি নিয়ে তার কিছু জানা নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 + 15 =