কলকাতার ইস্টার্ন মেট্রোপলিটন বা ইএম বাইপাসের ধারে মুকুন্দপুরে ইন্ডিয়ান সেন্টার ফর স্পেস ফিজিক্সের নবনির্মিত ভবনে স্পেস মিউজিয়ামের উদ্বোধন করলেন ভারতের প্রথম মহাকাশচারী রাকেশ শর্মা।এর নাম দেওয়া হয়েছে, ‘মিউজিয়াম ফর অ্যাস্ট্রোনমি অ্যান্ড স্পেস সায়েন্স’। এখানে রয়েছে অ্যাপোলো-১১ মহাকাশযানের মডেল (এতে চেপেই চাঁদে গিয়েছিলেন নিল আর্মস্ট্রং-সহ তিন জন মার্কিন মহাকাশচারী)। তার ভেতরে তিন মহাকাশচারীর পুতুলও রাখা হয়েছে। এছাড়াও এখানে রয়েছে অরভিল এবং উইলবার রাইটের তৈরি করা প্রথম প্লেনের মডেল।এছাড়াও, প্রথম ভারতীয় হিসেবে বেলুনে চেপে আকাশে পাড়ি দেওয়া রামচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ও কলকাতার বাসিন্দা অ্যাংলো ইন্ডিয়ান রকেট নির্মাতা স্টিফেন হেক্টর টেলর স্মিথের নানান স্মারক যত্ন সহকারে স্থান পেয়েছে। চাঁদের ও মঙ্গলের পাথর এবং একটি ছোট মাপের তারামণ্ডলও গড়ে তোলা হয়েছে এই সংগ্রহশালায়।

শুক্রবার এই মিউজিয়ামের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসে রাকেশ শর্মা বলেন, ‘মহাকাশ প্রযুক্তির ব্যবসায় বেসরকারি ক্ষেত্রের জন্যও দরজা খুলেছে দেশ। নতুন নতুন স্টার্ট-আপ তৈরি হচ্ছে।আশা করছি, ভবিষ্যতে এ দেশেও এলন মাস্ক, জেফ বেজোস তৈরি হবে।’উল্লেখ্য,এখনও পর্যন্ত তিনিই একমাত্র ভারতের প্রতিনিধি হিসাবে মহাকাশে গিয়েছেন। তবে ফের মহাকাশে মানুষ পাঠানোর তোড়জোড় শুরু করছে ইসরো। ইসরো সূত্রে খবর, এবার নিজেদের মহাকাশযানে চেপেই পাড়ি দেবেন বায়ুসেনার তিন জন পাইলট। আর ইসরোর সেই গগনযান প্রকল্পেও যুক্ত আছেন রাকেশ শর্মা।
এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইসরোর বিজ্ঞানী অনুজ নন্দী, ইসরোর মহাকাশ বিজ্ঞান বিভাগের প্রাক্তন অধিকর্তা সুভাষচন্দ্র চক্রবর্তী ও টাটা ইনস্টিটিউট অব ফান্ডামেন্টাল রিসার্চের পদার্থবিদ এ আর রাও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 + fifteen =