ভোররাতে ২০১৪-র টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলন তুলে দিলো পুলিশ।তাঁদের ৩ জনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।৮৪ ঘণ্টার মাথায় চ্যাংদোলা করে টেনে হিঁচড়ে করুণাময়ীতে আন্দোলনকারীদের তুলে দেয় পুলিশ। এমনই অভিযোগ তুললেন ২০১৪-র টেট উত্তীর্ণরা। গভীর রাতে পুলিশি অভিযান ঘিরে কার্যত ধুন্ধুমার বেঁধে যায় সেখানে।ভোররাতে আটক চাকরিপ্রার্থীদের পুলিশ বাসে করে এনে শিয়ালদা ও হাওড়া স্টেশন চত্বরে ছেড়ে দেয়। তবে এ সব কিছুর পরও পিছু হটতে নারাজ তাঁরা। আজ ভোরেই ২০১৪-র টেট উত্তীর্ণদের একাংশ শিয়ালদা স্টেশন চত্বর থেকে ফিরে যান ধর্মতলায় মাতঙ্গিনী হাজরার মূর্তির পাদদেশে তাঁদের অবস্থান মঞ্চে। পুলিশের বিরুদ্ধে অত্যাচারের অভিযোগ করেছেন আন্দোলনকারীরা। সেইসঙ্গে আন্দোলনকারী মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তাঁরা। তাঁদের প্রশ্ন, পুলিশ কীভাবে মহিলা আন্দোলনকারীদের ভোররাতে শিয়ালদা ও হাওড়া স্টেশন চত্বরে ছেড়ে দিল?
পাশাপাশি সামগ্রিক এই ঘটনার কড়া নিন্দা করে ট্যুইট করেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ট্যুইটারে তিনি লিখেছেন, ”পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশ সল্টলেকে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অফিসের সামনে ২০১৪-র টেট উত্তীর্ণদের অবস্থানকে নির্মমভাবে বলপ্রয়োগ করে তুলে দিয়েছে।পশ্চিমবঙ্গ, না কি, হিটলারের জার্মানি ?”
১৪৪ ধারা অমান্যের অভিযোগ, ‘বেআইনি’ জমায়েত তুলে দিল পুলিশ, শুক্রবার থেকে আন্দোলনের ডাক বিজেপি, সিপিএম, কংগ্রেসের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

7 + 11 =