ছেলের মৃত্যুর ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবিতে কাঁথি আদালত চত্বরে পোস্টার হাতে মৃতের বৃদ্ধ মা ও বাবা। ছেলেকে খুন করা হয়েছে। এই ঘটনায় জড়িত সমস্ত অভিযুক্তদের গ্রেফতার করে শাস্তি দিতে। পোস্টার হাতে আদালত চত্বরে দাড়িয়ে এমনই দাবি তুললেন মৃত ব্যাংক কর্মীর মা সুমিত্রা রায়। বৃহস্পতিবার কাঁথি মহকুমা আদালতে বঙ্গীয় গ্রামীণ বিকাশ ব্যাংকের কাঁথির দেশপ্রাণ ব্লকের মুকুন্দপুর শাখার মৃত ম্যানেজার সুমিত রায়ের মৃত্যু মামলার শুনানি ছিল। এদিন শুনানির আগে মৃত ব্যাংক ম্যানেজারের মা সুমিত্রা রায়,বাবা সঞ্জীব রায় সহ পরিবারের সদস্যরা আদালতে আসেন। আদালত চত্বরে দাড়িয়ে ছেলেকে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলে অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি জানান। তিনি অভিযোগ করেন, পুলিশ ছেলের মৃত্যুর খবর পর্যন্ত বাড়িতে জানায়নি পুলিশ । তবে মৃতের স্ত্রী শুভদীপ মাইতি রায় কে আগেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদিনের শুনানিতে ফের ১৪দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারপতি।
উল্লেখ্য, গত ২১আগস্ট রবিবার বঙ্গীয় গ্রামীণ বিকাশ ব্যাংকের কাঁথি দেশপ্রাণ ব্লকের মুকুন্দপুর শাখার ম্যানেজার সুমিত রায়(৩১) র ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এক বছর আগে কর্মসূত্রে মালদা থেকে কাঁথি তে আসেন। বাড়ি কলকাতার আগরপাড়া এলাকায়। কাঁথি শহরের আঠিলাগড়ি এলাকায় স্ত্রী কে নিয়েই ভাড়া থাকতেন। তবে শনিবার রাতে সুমিত রায়ের ঘরের মধ্যে থেকেই গলায় কাপড়ের ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলন্ত দেহ দেখতে পেয়ে স্ত্রী চিৎকার করেন। প্রতিবেশীরা ছুটে গিয়ে সেখান হাঁটু মাটিতে লেগে রয়েছে আর গলায় কাপড়ের ফাঁস রয়েছে বলে দেখতে পায়। খবর দেওয়া হয় কাঁথি থানার পুলিশকে । পুলিশ ঘটাস্থলে পৌঁছে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

20 + 1 =