জমি নিয়ে বিবাদের জেরে ভাইপোর হাতে খুন কাকু। প্রকাশ্য দিবালোকে গলায় ছুরির কোপ মেরে খুন। পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার অভিযুক্ত।ব্যাপক চাঞ্চল্য এলাকায়।খুনির শাস্তির দাবতে রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ। কান্নায় ভেঙে পড়েছে পরিবার। মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর থানার রশিদাবাদ গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত রানিপুরা গ্রামের ঘটনা।রানীপুরা গ্রামের বাসিন্দা ইখতেয়ার হোসেন(৪৫)।একটি জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তার সঙ্গে বিবাদ চলছিল তারই ভাইপো মুশফিক রেজার (২৫) সঙ্গে। জমির আল নিয়ে ছিল বিবাদ। সেই বিবাদের জেরে ৩ দিন আগে মুশফিক রেজার হাতে আক্রান্ত হয় ইখতেয়ার হোসেন। সেই সময় হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে গিয়ে নিজের চিকিৎসা করায় ইখতেয়ার। হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় লিখিত অভিযোগও দায়ের করেছিল বলে জানা গেছে। কিন্তু তারপরেই কুশিদায় নিজের দোকানে যাচ্ছিল ইখতেয়ার।সেই সময় প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তার মাঝেই কাকু ইখতেয়ার কে গলায় ছুরির কোপ মারে ভাইপো মুশফিক।ঘটনাস্থলে রক্তাক্ত হয়ে লুটিয়ে পড়ে ইখতেয়ার। সাথে সাথে তাকে হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।সমগ্র ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।অভিযুক্ত খুনির গ্রেপ্তারের দাবিতে তুলসীহাটা গামী রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় এলাকাবাসী।খবর পাওয়া মাত্র ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌঁছায় হরিশচন্দ্রপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।পুলিশের হস্তক্ষেপে উঠে যায় বিক্ষোভ।গ্রেপ্তার করা হয় খুনের দায়ে অভিযুক্ত মুশফিক রেজাকে।এই মুহূর্তে ব্যাপক ক্ষোভে ফুঁসছে এলাকাবাসী।পরিবার এবং এলাকার লোকেরা খুনীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে।ইখতেয়ার হোসেনের দুই মেয়ে এবং এক ছেলে রয়েছে।এই ভাবে তার মৃত্যুতে শোকে ভেঙে পড়েছে পরিবার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

19 − three =