মঙ্গলবার সাত সকালে নাগাদ ড্রেন থেকে উদ্ধার হল বছর পয়তাল্লিশের এক ব্যাক্তির মৃতদেহ।ঘটনাটি ঘটেছে জামুড়িয়া নিঘা কালী মন্দির এলাকায়।ঘটনাকে ঘিরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।মৃত ব্যক্তির নাম তাপস চৌধুরী,নিঘা কালী মন্দির এলাকার বাসিন্দা ছিলেন বলে জানা গেছে।
স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা গেছে রাত দশটা পর্যন্ত তাকে এলাকায় ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছিলো।তাদের অনুমান অতিরিক্ত মদ্যপান করে ড্রেনে পড়ে গিয়েই এই দুর্ঘটনা।

স্থানিয় এক ব্যাক্তি জানান সকালে ড্রেন জাম ছিলো।ড্রেন দেখতে গিয়ে দেখা যায় ড্রেনে তাপস চৌধুরী পড়ে আছে।সাথে সাথে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।পুলিশ এসে দেহ ময়নাতদন্তে নিয়ে যায়।তিনি জানান ওই ব্যাক্তি প্রচুর ড্রিং করতেন এবং ওই ড্রেনের পাশেই তার একটা রুম ছিলো,যেখানে তিনি থাকতেন।তাই প্রাথমিক অনুমান করা হচ্ছে মদ খেয়েই হয়তো ড্রেনে পড়ে গেছে তাপস চৌধুরী আর উঠতে পারেনি।রাত হয়ে যাওয়াই কারো নজরেও আসেনি।

শ্রীপুর পাড়ি পুলিশ দেহ উদ্ধার করে আসানসোল জেলা হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য পাঠায়।এটা দুর্ঘটনা না খুন এই নিয়ে তদন্তে নেমেছে জামুড়িয়া থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

three × 4 =