চায়ের দোকানে বচসার জেরে এক ব্যাক্তিকে হাসুয়া দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপানোর অভিযোগ উঠল। ওই ঘটনায় গুরুতর আহত হন মুকচাদ সেখ। অভিযোগের তীর সৌরভ মন্ডল নামে এক আত্মীয়র বিরুদ্ধে। গতকাল গভীর রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের ডোমকল থানার মেহেদিপাড়া এলাকায়। ঘটনার পর আহতকে তড়িঘড়ি উদ্ধার করে পাঠানো হয় ডোমকল সুপার ষ্পেশালিটি হাসপাতালে। জানাগেছে প্রতিদিনের মতো বাড়ির এলাকায় চায়ের দোকানে বসেছিলেন মুকচাদ। হঠাৎ তার বড়ভাইয়ের ছেলে সৌরভ মন্ডল মদ্যপ অবস্থায় হাসুয়া দিয়ে মুকচাদকে হাতে পিঠে সহ শরীরের বিভিন্ন জাইগায় এলোপাথাড়ি কোপাতে শুরু করে। উপস্থিত লোকেরা মুকচাদকে উদ্ধার করে। ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দিয়েছে অভিযুক্ত। পরিবারের লোকজন আহতকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায় ডোমকল সুপার ষ্পেশ্যালিটি হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে শারিরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় ঐ রাতেই বহরমপুরের মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বচসার জেরেই ওই ঘটনা বলে অনুমান পুলিশের। তদন্ত শুরু করেছে ডোমকল থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 − 14 =