আন্ধারমানিক গ্রাম পঞ্চায়েতের ২১৮ ও ২১৯ নম্বর বুথের বুথ সভাপতি সাধন মন্ডল। বয়স ৩৪ বছর। আনুমানিক রবিবার সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টার সময় একটি বাইকে করে তিনজন দুষ্কৃতী আসে।সেই সময় একটি চায়ের দোকানে তার ভাইপো ও অন্য এক প্রতিবেশীর সঙ্গে বসেছিলেন সাধন মন্ডল। ঠিক সেই সময় চা দোকান থেকে ২০ মিটার দূরে বাইকটি রেখে তিনজন দুষ্কৃতি আসে। চায়ের দোকানের মধ্যে ঢুকে পড়ে একজন।দোকানের মধ্যে ঢুকে আগ্নেয়াস্ত্র দেখাতেই কার্যত দোকানের মধ্যে থাকা ক্রেতারা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়।তারপর সাধন মন্ডলকে লক্ষ‍্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। ভাইপো অর্থাৎ প্রত্যক্ষদর্শী শুভঙ্কর মন্ডল জানায়,৬ থেকে ৮ রাউন্ড গুলি চলে।ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়েন সাধন মন্ডল। স্থানীয় মানুষজন চিৎকার চেঁচামেচিতে ছুটে আসে।ততক্ষণে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। ঘটনাস্থলে বিষ্ণুপুর থানার পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে পাঠিয়েছে আমতলা গ্রামীণ হসপিটালে।দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুর থানার অন্তর্গত তৃণমূল কংগ্রেসের অঞ্চল সভাপতির পিন্টু সরদারের অনুমান, রাজনৈতিক শত্রুতার কারণে খুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × four =