দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য এলাকায়। মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার ডাঙ্গী গ্রামের ঘটনা। ওই গ্রামেরই বাসিন্দা দিনমজুর বরেন রায়ের দুই মেয়ে। বড় মেয়ে দ্বাদশ শ্রেণীতে পড়তো বয়স(১৬)। বাবা গেছিল কাজে এবং মা ছিল নিকটবর্তী আত্মীয়ের বিয়ে বাড়িতে। সেই সময় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে দ্বাদশ শ্রেণীর ওই ছাত্রী। পরিবার সূত্রে খবর কোন রকম পারিবারিক সমস্যা ছিল না। নিজের স্বল্প উপার্জনের মধ্যে থেকেই মেয়েদের সব আবদার পূরণ করতেন বরেন রায়। তাই হঠাৎ এই ধরনের ঘটনায় হতচকিত পরিবার। আদরের মেয়েকে হারিয়ে শোকে বিহল হয়ে পড়েছে বাবা। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। সমগ্র ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

বাবা বরেন রায় বলেন, মেয়ে আমাকে সকাল বেলাখেতে দিল। তারপর আমি কাজে গেলাম। ওর মা বিয়ে বাড়িতে ছিল। কেন এই ধরনের ঘটনা ঘটালো ভেবে পাচ্ছিনা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 + seven =