তদন্তে নেমে নকল সোনার বাটসহ ছয় লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা উদ্ধার করল ভাঙড় থানার পুলিশ। এই ঘটনায় ইসরায়েল মোল্লা ও সফিকুল মোল্লা নামে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করলো পুলিশ। ভাঙড় থানার বড়ালীর একটি প্লাস্টিক কারখানার মালিককে সোনার বাট বিক্রি করেছিল ৩৪ লক্ষ টাকাতে। প্রায় এক কেজি পরিমানে সোনা কিনেছিল। সোনা বিক্রির পরই ইসরায়েল মোল্লা সহ তার সঙ্গীরা কলকাতা এয়ারপোর্ট থেকে দিল্লিতে পালিয়ে যায়। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত নেমে ভাঙড় থানার পুলিশ কর্মীরা দিল্লি থেকে ইজরায়েল মোল্লাকে গ্রেফতার করে ভাঙর থানায় এনে জিগ্যেসাবাদ করে তার সঙ্গী সফিকুল মোল্লাকে ও গ্রেফতার করে খড়্গাছি এলাকা থেকে। এই ঘটনার সঙ্গে কুতুবউদ্দিন মোল্লা, বাপ্পা মোল্লা সহ আরও বেশ কয়েকজন জড়িত রয়েছে। ঘটনার পর থেকেই পলাতক বাকিরা। পুলিশ তাদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে। বড়ালির প্লাস্টিক কারখানার মালিক বিষ্ণু আগরওয়াল সোনা কেনার পর বুঝতে পারেন তিনি প্রতারিত হয়েছেন। তারপরেই ভাঙড় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত নেমে পুলিশ কর্মীরা ইসরাইল ও সফিকুলকে গ্রেফতারের পাশাপাশি নকল সোনার বাট ও ছয় লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা উদ্ধার করে ঘটনা তদন্ত চালাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two + ten =