ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা নামখানা ব্লকের ফ্রেজারগঞ্জ থানার অন্তর্গত অমরাবতী গ্রামে। স্থানীয় সূত্র জানা যায় মৃত নার্সিং পড়বার নাম বিদিশা বিশ্বাস (১৯) বিদিশা প্রথম বর্ষের ছাত্রী। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বাড়িতে ভাই আর বিদিশা দুজনেই ছিল। বিদিশা ব্যাঙ্গালোরে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতিও নিচ্ছিল। রবিবার সন্ধ্যা রাতে বিদিশার বাবা-মা ব্যবসায়িক কাজ সেরে বাড়ীতে আসে। রবিবার রাতে খাওয়ার সময় বাবা-মা বিদিশাকে অনেক ডাকাডাকি করলেও কোনো রকম উত্তর মেলেনি। বিদিশ আর ফোনও সুইচ অফ ছিল। বাড়ির দ্বিতীয় তলায় বিদিশার ঘরে গিয়ে ডাকাডাকি করে পরিবারের সদস্যরা। অবশেষে দরজা ভেঙে বিদিশাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায় পরিবারের সদস্যরা। খবর দেয়া হয় থানাতে। ঘটনাস্থলে তড়িঘড়ি ছুটে আসে ফ্রেজারগঞ্জ কোস্টাল থানার পুলিশ। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কাকদ্বীপ পুলিশ মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। গোটা বিষয় নিয়ে একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে পুলিশ। নার্সিং পড়ুয়ার মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

eighteen − eight =