পূর্ব মেদনীপুরের কোলাঘাট থানার দেঁড়িয়াচ গ্রামের মাধ্যমিক শিক্ষক বাপ্পা বর্মন তিনি কাঁথির ভবানীপুর অঘরচাঁদ হাই স্কুলের মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষক ছিলেন। আজ সাত সকালই বাড়িতে কেউ না থাকায় বাড়ির পাশে টালির চালের ঘরে গামছা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন বলে অনুমান। এখন পর্যন্ত স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে দুটি বিষয়-তাঁর ফোনে একটা মেসেজ আসে মেসেজ এ লেখা থাকে সে ভূয়ো- শিক্ষক ও বিভিন্ন রকম মানুষ তাকে চোর অপবাদ দিচ্ছিলেন। যার জেরেই আত্মহত্যা করতে পারেন তিনি কিংবা তার তিন বছরের ভূয়ো শিক্ষকতা চলে যাওয়ার আশঙ্কায় এই আত্মহত্যা। তবে কি বিষয়ের উপর তার এই দুঃখ জনক আত্মহত্যা এখনো ধোঁয়াশায়। তবে ঘটনা স্থলে কোলাঘাট থানার পুলিশ এসে মৃত দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যায়।

মৃত স্ত্রী দাবি তার স্বামীর ফোন কেউ বা কারা হ্যাক করে এই ম্যাসেজ ছড়িয়েছে। ওই একি ম্যাসেজ শিক্ষক বাপ্পা বর্মণ সহ তার গ্রামে ও তার আত্মীয় পরিজনদের হোয়াটসঅ্যাপ ছড়ানো হয়েছে। করা হয়েছে ভাইরাল। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কোলাঘাট থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

twelve − 7 =