কথায় আছে ‘ সব তীর্থ বারবার গঙ্গাসাগর এক বার ‘ কিন্তু এখন এই কথা যেন অতীত। রাজ্য সরকারে ব্যাবস্থাপনাতে এখন আমূল পরিবর্তন হয়েছে গঙ্গাসাগরে । করোনা মহামারি কাটিয়ে চলতি বছরে গঙ্গাসাগর মেলায় পুন্যার্থীদের ঢল নেমেছে। পুন্যার্থীদের সুবিধার্থে এবছর বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। সেই কারণে এবার বাড়তি সতর্কতাও নেওয়া হয়েছে। পুলিশ, কোস্টগার্ড, নেভির পাশাপাশি বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরও সাগরে যথেষ্ট তৎপরতার সঙ্গে কাজ করছে। এছাড়াও বাড়তি নিরাপত্তা ও নজরদারির জন্য এবার জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর তরফে সাগর তটে নিয়ে আসা হয়েছে বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত লিলি ও রোমিওকে। সাগরমেলায় আসা পুণ্যার্থী সাগরস্নানের সময় কোনও ধরনের বিপদে পড়লেই ত্রাতা হিসেবে কাজ করবে এই জুটি। সমুদ্রে ডুবন্ত পুণ্যার্থীদের সঠিক অবস্থান জানিয়ে দেবে প্রশিক্ষিত ডুবুরিদের। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কুকুর ল্যাব্রেডর লিলি ও রোমিও দীর্ঘক্ষণ সাঁতার কাটতে পারে জলে। সমুদ্রের ঢেউয়ে পুণ্যার্থীদের ভেসে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা তৈরি হলে, এই দুটি সারমেয় তাদের বাঁচতে ঝাঁপিয়ে পড়বে। তবে সাগরতটে লিলি ,রোমিও কে পেয়ে অনেকটাই আনন্দিত পুন্যার্থীরা, তার সাথে তাদের মহড়া দেখতেও ভিড় জমাচ্ছেন সাগর তটে । এখন মানুষের জীবন বাঁচানোর লক্ষ্য নিয়ে প্রখর দৃষ্টিতে সাগর তটে তৎপর রয়েছে লিলি রোমিও ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

17 − 4 =