ববিতা সরকারের পর প্রিয়াঙ্কা সাউ, SSC মামলায় হাই কোর্টের নির্দেশে চাকরি পেতে চলেছেন।২৮ অক্টোবরের মধ্যে তাঁকে চাকরির নিয়োগপত্র দেওয়ার নির্দেশ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের। শিলিগুড়ির বাসিন্দা ববিতা সরকারের পর এবার একাদশ-দ্বাদশে এবার প্রিয়ঙ্কা সাউকে চাকরির নির্দেশ। এসএসসি-কে চাকরির নির্দেশ বিচারপতি অভিজিত্‍ গঙ্গোপাধ্যায়ের। ১১ অক্টোবর থেকে ২১ অক্টোবরের মধ্যে কাউন্সেলিং করে সুপারিশপত্র দেওয়ার নির্দেশ। প্রিয়ঙ্কাকে বাড়ির কাছাকাছি ৩টি স্কুল নির্বাচনের সুযোগ দিতে হবে বলে নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। ২৮ অক্টোবরের মধ্যে নিয়োগপত্র দিতে হবে বলে নির্দেশ হাইকোর্টের।
মামলাকারী চাকরিপ্রার্থী প্রিয়ঙ্কা সাউ বলেন, “আদালতের এই রায় আন্দোলনকারী চাকরিপ্রার্থীদের অনুপ্রাণিত করবে। তাঁরাও আদালতে যাওয়ার সাহস পাবেন, ন্যায়বিচার পাবেন। আমার আবেদন ছিল, আমি একজন ইংরেজি বিষয়ের শিক্ষক পদপ্রার্থী। আমার নাম দুটি ক্যাটেগরিতে ছিল। কিন্তু সেই নাম মহিলা ক্যাটেগরিতে শুধু রাখা হয়। ফলে র‍্যাঙ্ক অনুযায়ী আর আমাকে ডাকা হয়নি। সেই ভিত্তিতেই পিটিশন করেছিলাম।”                                                                                                                               বিচারপতি জানান,এদিকে আজ নিয়োগ-দুর্নীতি মামলায় সিবিআইয়ের তদন্ত রিপোর্টে ভয়ঙ্কর পরিসংখ্যান। আগে আবর্জনা পরিষ্কার করুন, গোটা প্যানেল খারিজ করা উচিত। মন্তব্য হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসুর। পর্যবেক্ষণে বিচারপতি জানান, এটা হিমশৈলের চূড়া, গোটা হিমশৈল জলের নীচে। ভবিষ্যতের ছাত্ররা শিক্ষকদের দিকে আঙুল তুলবে। জিজ্ঞাসা করবে, এঁরা কেমন শিক্ষক? সরকারি নিয়োগ প্রক্রিয়ায় যাতে অবৈধভাবে নিযুক্তরা অংশ নিতে না পারে, তার ব্যবস্থা করা উচিত বলে মন্তব্য করেন বিচারপতি। একইসঙ্গে তিনি বলেন, বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এই দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করছেন, আমিও সেই লড়াইয়ে সামিল হচ্ছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × three =