এমনই ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ঘাটাল পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ড এলাকায়, জানা যায় ঘাটাল চন্দ্রকোনা রাজ্য সড়কের ধারে বেআইনিভাবে চলছে বাড়ি নির্মাণ, হুশ নেই প্রশাসনের। অভিযোগকারী দীপঙ্কর দালাল জানান আমার পুকুরের পাশে সহদেব শাসমল নামে এক ব্যক্তি বেআইনিভাবে বাড়ি তৈরি করেছে, প্রায় এক মাস আগে আমি ঘাটাল পৌরসভায় বেআইনিভাবে বাড়ির নির্মাণের অভিযোগ করেছি কিন্তু পৌরসভা কোনরকম হস্তক্ষেপ করেনি, তিনি আরো জানান পৌরসভার চেয়ারম্যান এর সাথে আমি পার্সোনালি কথা বলেছি চেয়ারম্যান বলল ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অজিত দে এর সঙ্গে কথা বলে তাড়াতাড়ি বেআইনিভাবে বাড়ি নির্মাণ বন্ধ করো। আজকে দেড় মাস ধরে ঘাটাল পৌরসভার ১৬ ওয়ার্ডের বেআইনী ভাবে চলছে বাড়ি নির্মাণ কাজ। তবে এই বাড়ি নির্মাণ এর মালিক সহদেব শাসমল এর সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলে তিনি কোন প্রতিক্রিয়া দেয়নি।

যদিও ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে বাড়ি নির্মাণের ব্যাপারে ঘাটাল পৌরসভার চেয়ারম্যান তুহিন কান্তি বেড়ার কাছে যাওয়া হলে তিনি ক্যামেরার সামনে কোন প্রতিক্রিয়া দেয়নি।

তবে এই বিষয়ে ঘাটাল পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান তথা ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর অজিত দে জানান বেআইনিভাবে বাড়ি নির্মাণের অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা, আমাদের পৌরসভার আইন মেনে হচ্ছে বাড়ি নির্মাণ।

তবে ঘাটাল পৌরসভায় বেআইনিভাবে বাড়ি নির্মাণের বিরুদ্ধে সবর হয়েছে সিপিএম ও বিজেপি।

এ বিষয়ে ঘাটালের সিপিআইএম নেতা চিন্ময় পাল বলেন এখন তৃণমূল নেতারা শুধু ঘাটাল পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে নয় একেবারে রাজ্যজুড়ে কয়লা থেকে বালি, গরু থেকে সোনা এমনকি বেকার যুবকদের চাকরী পর্যন্ত চুরি হচ্ছে, চুরি করা আর কাঠমানি খাওয়া তৃণমূল নেতাদের অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস চোর তৃণমূল, ক্ষমতায় এলে বেআইনি নির্মাণ হবে আগে থেকেই জানতো ঘাটাল পৌরসভার বাসিন্দারা এবার তারা হাড়ে হাড়ে বুঝছে, দাঁত থাকতে তো মানুষ দাঁতের মর্ম বোঝেনি, তৃণমূল কংগ্রেসকে জিতিয়ে কি সর্বনাশটাই না হয়েছে এবার মানুষজন বুঝতে পারছে।

বিজেপি বিধায়ক শীতল কপাট বলেন দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূল কংগ্রেস অবৈধভাবে কাজ করে এসেছে, অবৈধভাবে তোলাবাজি আর সিন্ডিকেট তৈরি করেছে গোটা বাংলা জুড়ে, ঘাটালে অবৈধভাবে বাড়ি নির্মাণ এটা আর নতুন কিছু নয়, আমরা চাই আইনি পথে সঠিকভাবে সঠিক কাজ হোক। ঘাটাল পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে বেআইনিভাবে বাড়ির নির্মাণে তৃণমূলের কোন কোন নেতার হাত আছে এবং কত টাকায় রফা হয়েছে আমরা সবই জানি, ঘাটাল পৌরসভার চেয়ারম্যান সাহেবকে বলবো কারো দ্বারা প্রবাহিত হয়ে অবৈধ কাজকে মদত দেবেন না, অবিলম্বে অবৈধ কাজ বন্ধ করে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা আর যদি না পারেন চেয়ারম্যান পদ থেকে অবিলম্বে ইস্তফা দেন আর তাও যদি না পারেন আইনকে কিভাবে আইনের কাজ করতে হয় সেটা আমরা দেখিয়ে দেবো, আপনি উপযুক্ত শাস্তি পাবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

nineteen − 8 =