এদিন বেলুড় মঠের রূপকার শ্রী শ্রীঠাকুরের আশীর্বাদ ধন্য সন্ন্যাসী স্বামী বিজ্ঞানানন্দের জন্ম-তিথি।সেই উপলক্ষে সকালে বেলুড় মঠে,মঠে নিত্য আগত ভক্তদের জন্য একটি অভ্যর্থনা ও অনুসন্ধান ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপিত হল।বেলুড় মঠের প্রধান ফটকের ডান দিকে ১৭৯০বর্গফুট এলাকায় নিয়ে সর্বমোট ৫১৩৫ বঃফুটের ত্রি-তল ভবনটি তৈরী হতে ৬-৮ মাস সময় লাগবে।আনুমানিক খরচ প্রায় ১ কোটি টাকা।যার ৩৩% দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার।

মূলত দূরদূরান্ত থেকে আসা ভক্তদের জন্যই এই ভবনটি নির্মিত হতে চলেছে।যেখানে প্রথম তলে থাকবে এনকোয়ারী ও রিসেপশন সেন্টার।থাকবে বয়স্ক বা অসুস্থ ভক্তদের জন্য বিশ্রামাগার ও জরুরী চিকিৎসা ব্যাবস্থা।ভবিষ্যতে এই ভবনের মাধ্যমে নিরাপত্তাজনিত ব্যবস্থা যেমন স্ক্যানার মোবাইল চেকিং ইত্যাদি সেন্টার করারও ভাবনা রয়েছে।বেলুড় মঠের রীতি অনুযায়ী,সন্ন্যাসী ব্রহ্মচারীদের সম্মিলিত স্তোত্রপাঠ,শ্রী শ্রী মা, ঠাকুর এবং স্বামীজী ও স্বামী বিজ্ঞানানন্দের ছবিতে পূজা দিয়ে মঠাধ্যক্ষ স্বামী স্মরণানন্দ ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। তার আশীর্বাদী ফুল এবং ইট দিয়ে মহারাজেরা ইট প্রোথিত করেন।

উপস্থিত ছিলেন মঠ মিশনের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ সহ অন্যান্য সন্ন্যাসীরা। অল্প সময়ের এই ভাব গম্ভীর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আগামী দিনে বেলুড় মঠে আগত দর্শক এবং ভক্তদের জন্য বিশেষ সুবিধা যুক্ত ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপিত হল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

18 − five =