কেটে গেছে দীর্ঘ ছয় ছয়টা বছর।এখনো পর্যন্ত বিদ্যুৎবিহীন হয়ে রয়েছে আস্ত একটি গ্রাম। এই ছবি মালদহের পুরাতন মালদা ব্লকের সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মাধাইপুরের দীঘিপাড়া এলাকার। প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বিক্ষোভ প্রদর্শন করলেন গ্রামবাসীরা। দীর্ঘ ছয় বছর ধরে বারবার বিদ্যুৎ দপ্তরে অভিযোগ জানিয়েও কোন সুরাহা হয়নি বলে অভিযোগ। এমনকি বিদ্যুৎ দপ্তরের অধীনে থাকা ঠিকাদার সংস্থাকে বিদ্যুৎ সংযোগের কথা জানানো হলে মোটা টাকার কাটমানি চাওয়ার অভিযোগ ঠিকাদারের বিরুদ্ধে।দীর্ঘ ছয় বছর ধরে অন্ধকার ঘুটঘুটের মধ্যে চলাচল করতে নিরাপত্তার অভাব বোধ করছেন এলাকাবাসীরা। এমনকি গরমেও অসুস্থ হয়ে পড়ছেন বৃদ্ধ মানুষেরা। বর্ষার সন্ধ্যায় আরো ভয়াবহ অবস্থা এই গ্রামে।পানীয় জল ও যাতায়াতের পথেরও নেই সঠিক ব্যবস্থা।
জানা গেছে, ছয় বছর আগে এই গ্রামের বাসিন্দারা অনত্র জায়গা থেকে এসে নিজস্ব বাসভূমিতে বাড়ি তৈরি করে বসবাস করতে শুরু করে। তবে বিদ্যুৎ পরিষেবার জন্য আবেদনও করা হয়েছিল। কিন্তু তাদের অভিযোগ দীর্ঘ ৬ বছর ধরে বহু বার বিদ্যুৎ দপ্তরকে বলা সত্ত্বেও তারা কোন কর্ণপাত করেনি বলে অভিযোগ। এই গ্রামে মোট ২৫টি পরিবারের বসবাস, বছরের পর বছর ভয়াবহ গরম ও ঝড় বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে দুর্বিষহ অবস্থায় দিন কাটাতে হচ্ছে পরিবারগুলোকে।যদি আগামী দিনে বিদ্যুৎ সংযোগ না করা হয় তাহলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামবো,জানালেন গ্রামবাসীরা।

যদিও এ বিষয়ে জেলা বিদ্যুৎ দপ্তরের রিজিওনাল ম্যানেজার উজ্জ্বল রায় জানান, বিষয়টি আমি শুনলাম যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সমস্যা সমাধানের চেষ্টা আমরা করছি।ইতিমধ্যেই সেখানে আমাদের টিম পাঠানো হয়েছে, তারা বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন। দ্রুত সমাধান হয়ে যাবে। আর যে সমস্ত ঠিকাদার সংস্থার কর্মীরা টাকা চাইছে আমরা উপভোক্তাদের বলবো এই সমস্ত দিক থেকে সজাগ সতর্ক থাকুন। আর যারা টাকার বিনিময়ে বিদ্যুৎ পরিষেবা পাইয়ে দিচ্ছে আমাদের নজরে আসলে তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

8 + 14 =