মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর দক্ষিণ চক্রের কনুয়া ভবানীপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক রাহানুল ইসলাম এবং মালদহের হবিবপুর ব্লকের দাল্লা চন্দ্রমোহন উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয়দেব লাহিড়ী। এই দুই শিক্ষক পেতে চলেছেন শিক্ষারত্ন। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে শিক্ষারত্ন পাছেন এমনিই চিঠি পৌঁছাতে খুশি প্রধান শিক্ষক সহ দাল্লা চন্দ্র মোহন বিদ্যালের সকল শিক্ষকদের মধ্যে খুশির হাওয়া। জয়দেব লাহিড়ী দাল্লা চন্দ্রমোহন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হওয়ার পর থেকেই ভারত বাংলাদেশ সিমান্তে রয়েছে ওই স্কুল। তিনি স্কুলে প্রধান শিক্ষক হওয়ার পর থেকে ওই এলাকার পরিস্থিতি দেখে তিনি ওই এলাকার বাসিন্দাদের বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করতে থাকেন। তার সাথে সাথে ছাত্র ছাত্রীদের বিভিন্ন ভাবে নিরাপদ রয়েছে স্কুলে ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে এমনই বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন।
পাশাপাশি, ওই এলাকায় বাল্যবিবাহ রোধ করার কাজ শুরু করেন। বিভিন্ন সময়ে স্কুলে তরফে রক্তদান শিবির করে থাকেন। অব্রাহ্মণ শিক্ষককে দিয়ে সরস্বতী পুজো করিয়ে পুজোর রীতি ভেঙে পুজো করার সকলের কাছে বলেছিলেন তিনি। বেশ কয়েক বছর ধরে আদিবাসী এক ছাত্রীকে দিয়ে দিয়ে সরস্বতী পুজো করিয়েছেন।
এছাড়াও বিভিন্ন শিক্ষকদের নিয়ে মাঝেমধ্যেই গ্রামে গ্রামে গিয়ে প্রচার চালাতেন বাল্যবিবাহ সহ অসুখ হলে হসপিটালে যেতে হয় কোন ওঝা দেখাবেন না। পাশাপাশি ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে বিভিন্ন ধরনের কুসংস্কার থেকে সচেনতা প্রচার থেকে শুরু ছাত্রছাত্রী স্কুল আসা থেকে শুরু করে ওই যেকোনো সমস্যা তিনি তার স্কুল শিক্ষকদের নিয়ে পৌঁছে যেতেন এলাকায়।
এবিষয়ে প্রধান শিক্ষক জয়দেব লাহিড়ী বলেন,‌ শিক্ষারত্ন পাচ্ছি এটা আমার ও আমার স্কুলের সকল শিক্ষকের সহযোগিতায়, আমি খুব খুশি প্রথম মুখ্যমন্ত্রী বা শিক্ষামন্ত্রী হাত থেকে এই পুরস্কার পাওয়ার জন্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

7 − 6 =