নবম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রীর অর্ধনগ্ন মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য এলাকা জুড়ে। স্থানীয় সূত্রে শুধু জানা গেছে, ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের কালিয়াচক থানার অন্তর্গত জালুয়াবাধাল অঞ্চলের শ্রীরামপুর এলাকায়। মৃত ছাত্রীর নাম শাহিনা খাতুন (বিউটি), তার বয়স আনুমানিক ১৮ বছর।
সে স্থানীয় হাইস্কুলে নবম শ্রেণীতে পড়তো।
ওই ছাত্রীর পরিবার সুত্রে জানা গেছে, গতকাল সকাল নাগাদ সে টিউশন পড়তে বের হয় কিন্তু সন্ধ্যা গড়িয়ে গেলেও ওই ছাত্রী আর বাড়ি ফেরেনি । ইতিমধ্যেই রাত হলেও বাড়ি না ফেরায় তার বান্ধবীদের বাড়িতে ওই ছাত্রীর খোঁজ নিলে তারা জানায় সাহিনা তাদের বাড়িতে যায়নি।
এরপর আজ অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সকাল আটটা নাগাদ তারা জানতে পারেন পাশের গ্রামের একটি আমবাগানে জঙ্গলের মধ্যে কেউ বা কারা তাদের মেয়েকে খুন করে ফেলে রেখেছে।
এদিকে স্থানীয়দের অনুমান, এলাকার কুখ্যাত দুষ্কৃতীরাই ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে খুন করেছে বলে অভিযোগ। পাশাপাশি ঘটনার খবর জানাজানি হতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় কালিয়াচক থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।
তারা ছাত্রীর মৃতদেহটি উদ্ধার করে মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছেন এবং ইতিমধ্যেই পুলিশ পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 − two =