বিষধর সাপের কামড়ে মৃত্যু হল এক যুবকের। এরপরই মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলেও বাঁচানো সম্ভব হয়নি। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যুবকের মৃত্যুর কথা জানিয়ে দিলেও থেমে থাকেননি পরিবারের লোকেরা। সাপে কাটা মৃত যুবককে হাসপাতাল থেকে ফিরিয়ে নিয়ে এসে বাড়িতে চলল গুনি ওঝা দিয়ে ঝাড়ফুঁক। পরিবারের দাবি ঝাড়ফুঁকের মাধ্যমে মৃত যুবক বেঁচে উঠবে এবং ঝাড়ফুঁকের দৃশ্য দেখার জন্য এলাকার শতাধিক মানুষ জড়ো হয়ে গুনি ওঝা কীর্তি দেখতে।
যদিও খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে মালদা থানার পুলিশ। তবে দেহ পুলিশকে দিতে নারাজ পরিবার পক্ষের। পরিবারের লোকজনের দাবি তাদের ছেলে বেঁচে যাবে যদিও এই ঘটনা নিন্দা প্রকাশ করেছেন স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য সুভাষ মন্ডল।
জানা গেছে মৃত যুবকের নাম মিঠুন মন্ডল(২৩) সে কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র।। মৃত ছাত্রের বাবার নাম বাবার নাম ভরত মন্ডল। সাপে কামড়ে ছিল আজ। অবশেষে মালদা থানার আইসি হীরক বিশ্বাস মৃত যুবকের পরিবারের সঙ্গে কথা বলে দেহ উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যায়। তরতাজা যুবকের অকাল প্রয়াণে সুখের ছায়া নেমে এসেছে পরিবারসহ গোটা এলাকা জুড়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × two =