ঘরের ভেতরে এক গৃহবধুর রক্তাক্ত ক্ষত-বিক্ষত দেহে উদ্ধারকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ালো মালদা জেলার ইংরেজ বাজার থানার গাবগাছি যদুপুর এলাকায়। মৃতদেহ আনা হলো ময়নাতদন্তে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে। মৃত গৃহবধুর নাম রিংকি শীল মন্ডল বয়স (২৬) বছর। অভিযুক্ত স্বামী ছোটন মন্ডল। পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায় বিগত প্রায় কয়েক বছর আগে মালদা শহরের কৃষ্ণপল্লী নেতাজী কলোনির বাসিন্দা বিপদ শীলের মেয়ে রিঙ্কি শীল যদুপুরের যুবক ছোটন মন্ডলের সাথে ভালোবাসা করে বিয়ে করে। পরিবারে তাদের এক সন্তানও রয়েছে। মৃত গৃহবধূর বাবা বিপদ শীল জানান বিয়ের পর থেকেই পনের জন্য তার মেয়েকে মানসিক ও শারীরিক অত্যাচার করত তার স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ি লোকেরা। এই নিয়ে মাঝে মধ্যেই তাদের মধ্যে গন্ডগোল বেঁধে থাকতো।পন হিসাবে আবার টোটো কেনার জন্য ২ লক্ষ টাকা আবদার করেছিল তার জামাই। না দিতে পারায় তার মেয়েকে খুন করেছে বলে অভিযোগ স্বামী সহ শ্বশুরবাড়ি লোকেদের। এই বিষয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মৃত গৃহবধুর পরিবার ইংরেজ বাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত স্বামী ও তার শ্বশুরবাড়ির লোকেরা পলাতক। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজ বাজার থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

seven + 5 =