রাতের অন্ধকারে ক্লাস নবম শ্রেণীর ছাত্রের গোপনাঙ্গ কেটে পালালো দুষ্কৃতীরা। আহত ছাত্র চিকিৎসাধীন মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার গভীর রাতে মালদা জেলার রতুয়া থানার সামসির তুষরক্ষা গ্রামে। আহত ছাত্রের নাম আসিফ আলি বয়স(১৫) বছর। পরিবার রয়েছে বাবা রফিক আলী।
পরিবারও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আসিফ স্থানীয় বৈদ্যনাথ হাই স্কুলের নবম শ্রেণীর ছাত্র। অন্যান্য দিনের মতো গতকাল রাতে খাওয়া দাওয়া করে নিজের ঘরে ঘুমাচ্ছিলেন ওই স্কুল ছাত্র। রাতে হঠাৎই চিৎকার শুনতে পাই তার বাবা। তড়িঘড়ি ছুটে এসে দেখে ছেলে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে বাড়ির উঠোনে। এরপর দেখতে পাই তার গোপনাঙ্গ কাটা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রতুয়া থানার পুলিশ। তড়িঘড়ি ওই স্কুল ছাত্রকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় সামসি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায় চিকিৎসার জন্য। অবস্থার অবনতি হলে রাতেই মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ওই স্কুল ছাত্রকে।
পাশাপাশি স্কুল ছাত্রের বাবা রফিক আলী জানান, আমার ছেলে খাওয়া দাওয়া করে ঘুমিয়ে পড়ে তার কিছুক্ষণ পরেই চিৎকার শুনতে পাই। সেখানে গিয়ে দেখি ছেলের যৌনাঙ্গ কাটা ও রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তার বাবা আরো জানান যে আমার ছেলে জানাই দুইজন মুখ ঢাকা অবস্থায় রাতের অন্ধকারে এসে আমার যৌনাঙ্গ কেটে নিয়ে পালিয়ে যায় তবে কাউকে চিনতে পারিনি আমার ছেলে। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

13 + thirteen =