আমফান,ইয়াস ,অশনির পর রাজ্যে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘সিত্রাং’।শক্তি বাড়িয়ে আন্দামান সাগরে তৈরি হয়েছে গভীর নিম্নচাপ।ঠিক কোথায় অবস্থান করছে ঘূর্ণিঝড়টি ?পোর্ট ব্লেয়ার থেকে ১১০ কিমি উত্তর-উত্তর পশ্চিমে অবস্থান করছে নিম্নচাপ।সাগরদ্বীপ থেকে ১ হাজার ৪৬০ কিমি দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে অবস্থান করছে।সোমবার সকালে গভীর নিম্নচাপ পরিণত হবে ঘূর্ণিঝড়ে।মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশ উপকূলের উপর দিয়ে বয়ে যাবে ঘূর্ণিঝড়।২৪-২৫ অক্টোবর দুই ২৪ পরগনায়,দুই মেদিনীপুরে ও ২৫ অক্টোবর দুই ২৪ পরগনা, নদিয়ায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস।

২৪ অক্টোবর সর্বোচ্চ ৬৫ কিমি বেগে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া। ২৫ অক্টোবর দুই ২৪ পরগনায় সর্বোচ্চ ৯০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া। সুন্দরবন এলাকায় ফেরি পরিষেবা বন্ধ থাকবে।পাশাপাশি উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে শুরু হয়েছে প্রস্তুতি। সুন্দরবন কোস্টাল থানার তরফে মাইকে সতর্কতামূলক প্রচার চালানো হচ্ছে।মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে না যাওয়ার পরামর্শ দেওয়ার পাশাপাশি, নদী তীরবর্তী এলাকার বাসিন্দাদের সতর্ক করা হচ্ছে। ঝোড়ো হাওয়া ও বৃষ্টি শুরু হলে, কাছাকাছি ফ্লাড সেন্টারে আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে।

প্রথমে ওড়িশা, তারপর পশ্চিমবঙ্গের উপকূল স্পর্শ করে ঘূর্ণিঝড় যাবে বাংলাদেশের দিকে। ২৫ অক্টোবর সকালে বাংলাদেশ উপকূল পেরবে।
পূর্ব মেদিনীপুর ও উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায় হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টি, মাঝে মধ্যে ভারি বৃষ্টির সম্ভাবনা।কলকাতা ও সংলগ্ন জেলাতে সরাসরি ঘূর্ণিঝড় না এলেও প্রভাব পড়বে।সর্বোচ্চ ঘণ্টায় ৬০-৬৫ কিলোমিটার বেগে বইতে পারে হাওয়া।

ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলা ও নজরদারিতে ১০ আইএএস অফিসারকে বিশেষ দায়িত্ব দিল নবান্ন।সেই সঙ্গে জরুরি পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত কর্মীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। নবান্ন সূত্রে খবর, দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে ২৮টি মোবাইল ট্রিটমেন্ট ইউনিট প্রস্তুত করা হয়েছে। সেই সঙ্গে জেলায় জেলায় খোলা হল কন্ট্রোল রুম। পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি, জেলা পরিষদে পর্যাপ্ত কর্মী মোতায়েন রাখার নির্দেশ। তৈরি দমকলের ৪৬টি টিম অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে মোতায়েন করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

4 − 3 =