নরেন্দ্রপুর থানা এলাকার গড়িয়ার কালীতলায় ভাড়াবাড়ি থেকে উদ্ধার হয় ১৮ বছর বয়সী কলেজ ছাত্রী সুদেষ্ণা নস্করের দেহ। একবছর আগে তার মা বৃহস্পতি নস্করেরও মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। অভিযোগ অভিযুক্ত অবিনাশ নস্করের সাথে অন্য মহিলার অবৈধ সম্পর্ক আছে। মা ও মেয়ের নামে কিছু টাকা ব্যাঙ্কে ছিল সেই টাকা হাতানোর লক্ষ্যেই প্রথমে মা ও পরে মেয়েকে খুন করা হয় বলে অভিযোগ। মৃত সুদেষ্ণার মামাবাড়ির অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে নরেন্দ্রপুর থানার পুলিশ। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। খুন নাকি তা আত্মহত্যা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে। সুদেষ্ণার বন্ধুরা গতকাল বিকেলে তাকে ডাকতে যায়। প্রথমে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে জানলার ফাঁক দিয়ে তার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পায়। তারাই বিষয়টি অন্যান্যদের জানায়। পুলিশকে খবর দেওয়া হলে পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে। এই ঘটনায় অবিনাশ নস্কর কে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। বাড়ির মালিক ও অন্যান্য ভাড়াটিয়াদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সুদেষ্ণার মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

3 × three =