শনিবার রাতে দোকান চুরির ঘটনায় রবিবার সকালে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ল শীতল কুচি বাজারে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় প্রতিদিনের মতো গতকালও ওই মোবাইল দোকানদার নাহারুল মিয়া দোকান বন্ধ করে বাড়িতে যান আজ সকালে তথা রবিবার দোকান খুলে দেখেন দোকানের সমস্ত জিনিস এলোমেলো অবস্থায় রয়েছে। প্রথমদিকে ওই দোকানদার ভাবছিলেন হয়তো কোন ভারী জিনিস পড়ে জিনিসপত্রগুলো এলোমেলো হয়েছে কিন্তু একটু পরেই বুঝতে পারেন দোকানে সমস্ত জিনিস চুরি হয়ে গেছে, তিনি জানান প্রায় দের লক্ষ টাকার জিনিস সহ নগদ কিছু মুদ্রাও চুরি যায়,
ঘটনার খবর পেয়ে শীতলকুচি পুলিশ প্রশাসন ঘটনাস্থলে পৌঁছান এবং চুরি বিষয়ে নানাদিক খতিয়ে দেখেন।
এ বিষয়ে ব্যবসায়ী সমিতির সহ-সম্পাদক ভজন সাহা বলেন শীতলকুচি বাজারে আগে আরজি পার্টি ছিল কিন্তু কোন কারনে সেই আর্জি পার্টির ডিউটি বন্ধ হয়ে রয়েছে ফলে এমন দুর্ঘটনা ঘটছে। যদিও তিনি বলেন কয়েক বছর ধরে এমন ঘটনা শীতলকুচি বাজারে ঘটেনি ,শীতলকুচি থানা থেকে ১০০ মিটারের মধ্যে এরকম দোকান চুরির ঘটনায় প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্নই উঠছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

four × five =