পুরনো আক্রোশের জেরে শিক্ষক দিবসের দিন মালদহে সহপাঠীর হাতে আক্রান্ত নবম শ্রেণীর ছাত্র। জানা গিয়েছে আক্রান্ত ছাত্রের নাম তাজদির শেখ(১৫) বাড়ি মালদহের মোথাবাড়ি থানার মথুরাপুরের মেহেরাপুর এলাকায়। সে স্থানীয় গঙ্গাধর হাই স্কুলে নবম শ্রেণীতে পড়াশোনা করে। গতকাল ৫ই সেপ্টেম্বর শিক্ষক দিবস উপলক্ষে স্কুলে গিয়েছিল হঠাৎ স্কুলে তাকে একাই ফাঁকা পেয়ে রাজুর শেখ ও তার দলবল তাজদির শেখকে বেধড়ক ভাবে মারধর করে বলে অভিযোগ। স্কুলের মধ্যেই অভিযুক্তরা হাতের পাঞ্জা ও চেন দিয়ে সহপাঠী তাজদির শেখের মাথা ফাটিয়ে দেয় এবং ডান চোখে আঘাত করে বলে অভিযোগ। এরপরেই তাজদির শেখ স্কুলের মধ্যেই গুরুতর জখম হয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলায় তাকে তড়িঘড়ি স্কুল শিক্ষকেরা চিকিৎসার জন্য স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করেন। তবে সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় রাতেই মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন চিকিৎসকেরা। বর্তমানে আক্রান্ত নবম শ্রেণীর ছাত্র মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
সম্প্রতি জানা গিয়েছে, নবম শ্রেণীর ছাত্র তাজদির শেখের এলাকায় অভিযুক্ত রাজু শেখ ও রোহিত শেখ গিয়ে গ্রামের মধ্যে অসামাজিক মূলক কাজ কর্মের পাশাপাশি দাদাগিরি করছিল বলে অভিযোগ। এরপর স্থানীয় বাসিন্দাদের সন্দেহ হলে দুজনকে ধরে মারধর করে এবং মারধরের ফলে সহপাঠী তাজদির শেখের ওপর সন্দেহের বসে পুরনো একটি আক্রোশ জন্ম নেয় বলে জানা গিয়েছে।
এদিকে, এই ঘটনার পর তাজদির শেখের পরিবারের লোকেরা মোথাবাড়ি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন এবং অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই অভিযুক্ত রাজু শেখ ও রোহিত শেখকে রাতেই মালদহের মোথাবাড়ি থানার পুলিশ গ্রেফতার করে। তবে কি পুরনো আক্রোশের জেরেই এই শত্রুতা! যার কারণে সহপাঠীকে আক্রান্ত হলে হতো সহপাঠীদের হাতে। এই নিয়ে অভিযুক্তদের জিজ্ঞাসাবাদ করে তদন্ত শুরু করেছে মোথাবাড়ি থানার পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

6 − one =