মালদহের চাঁচল থানার মাধবপুর সেতুর ঘটনা।জেলেদের তৎপরতায় প্রানে বেঁচেছে ওই টোটোচালক।জলে পড়া শব্দ শুনে ছুটে সেতুর নীচে থাকা জেলেরা ছুটে গিয়ে উদ্ধার করে ওই টোটোচালককে।খবর দেওয়া চাঁচল থানায়।তার প্রাথমিক চিকিৎসা করানো হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে,টোটো চালকের নাম অভিজিৎ সাহা।বাড়ি চাঁচল-১ ব্লকের মতিহারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সোনারায় গ্রামে।অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে চাঁচল থানার পুলিশ।ধৃতদের নাম তোফিক আলী ও ওয়াস্তি আলী।তাদেরও বাড়ি সোনারায় গ্রামে।শনিবার তাদের চাঁচল মহকুমা আদালতে পেশ করা হয়েছে।টোটোটির খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

টোটো চালক অভিজিৎ সাহা জানান,গ্রামের দুই যুবক আমার টোটো রিজার্ভ করে।চাঁচল থেকে মদ কিনে কলিগ্রাম ফুটবল মাঠে আসরে বসি।প্রথম বারে এক গ্লাস পান করে কিছু হয়নি।দ্বিতীয়বার পান করতেই অজ্ঞান হয়।তারপর আর কোনো হুশ নেই।সকালে জ্ঞান ফেরার পর জানতে পারি ওরা আমাকে সেতু থেকে নদীতে ফেলে দেয়।জেলেরা আমার হাত পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে।পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করুক,এই দাবিতে থানায় অভিযোগ করেছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × 5 =