বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ, সিজনো তার মধ্যে একটি অন্যতম । এটি মূলত মাছের পর্বন । তাই অনেকে এই পর্বন কে বাঙালির মাছ, ভাত উৎসবও বলে থাকে । সরস্বতী পুজোর দিন ভাত, সবজির পাশাপাশি মাছের একাধিক পদ রান্না হয় কমবেশি প্রতিটি বাঙালি পরিবারে । পুজোর পরের দিন তা খাওয়া হয় পাত পেরে । এই পর্বনে মাছের চাহিদা থাকে তুঙ্গে । এ বছরও তার কোন ব্যতিক্রম হয়নি । বৃহস্পতিবার ভোর রাত থেকেই খনি অঞ্চলের উখরা সহ বিভিন্ন মাছের আড়তে ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো । স্থানীয়দের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট এলাকার বিভিন্ন মাছ চাষী এদিন ভোররাতে মাছ বিক্রি করতে এসেছিলেন বিভিন্ন আড়তে । মাছ ব্যবসায়ী গোপীনাথ ধীবর, রঞ্জিত ধীবররা জানান অন্যান্য বছরে তুলনায় এবার মাছের যোগান বেশি রয়েছে । চাহিদার তুলনায় যোগান বেশি থাকায় দাম রয়েছে স্বাভাবিক । বড় ওজনের দেশী কাতলা, রুই, মিরিক মাছ বিক্রি হচ্ছে ২৫০ থেকে ৩৫০ টাকায় । ছোট মাছের দর কিলো প্রতি ২০০ টাকা । অন্যান্য বছর কিলো প্রতি ৫০ থেকে ১০০ টাকা দর বেশি ছিল ।‌ এছাড়া সরস্বতী পূজোর সময় বিয়ের লগ্ন রয়েছে । সেই কারণে ও মাছের চাহিদা অন্যান্য বছরের তুলনায় একটু কম রয়েছে বলে জানান তারা ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

fifteen − thirteen =