খুন আউশগ্রামে।অভিযোগ উঠল গ্রামের এক বাসিন্দার বিরুদ্ধে। ঘটনাস্থলে বর্ধমান জেলা পুলিশ আধিকারিকসহ বিশাল পুলিশ বাহিনী।টিউবওয়েলের হাঁতল দিয়ে মাথা থেতলে আউশগ্রামে এক ব্যক্তিকে খুন করার অভিযোগ উঠল।আউশগ্রামের রেওড়া গ্রামের ঘটনা। মৃত ব্যক্তির নাম সাদেক শেখ(৩৮)। ওই ঘটনায় চন্দন মেটে নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার জেরে এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। খবর পেয়ে এলাকায় যায় বিশাল পুলিশবাহিনী।ঘটনাস্থলে পৌঁছান পূর্ব বর্ধমানের পুলিশ সুপার কামনাশীষ সেন সহ পুলিশ আধিকারিকরা।পেশায় কৃষক ছিলেন সাদেক শেখ। নিহতের ভাই সঞ্জয় শেখ জানান,এদিন বিকেলে তার দাদা সাবমার্সিবল পাম্পের সেচ বাবদ বিলের টাকা আদায় করতে বেড়িয়েছিলেন। মেটেপাড়ায় চন্দন মেটের বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় সাদেকের ওপর হামলা করা হয়।অভিযোগ, চন্দন আচমকাই টিউবওয়েলের লোহার হাতল দিয়ে সাদেকের মাথায় আঘাত করে।খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে বীরভূমের সিয়ান হাসপাতালে নিয়ে যান। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার মৃত্যু হয়। সঞ্জয় শেখের অভিযোগ, পুরানো কোনও বিবাদের কারণেই তার দাদাকে চন্দন মেটে খুন করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

16 − two =