স্বামীজীর জন্মদিনে সকাল থেকেই বিভিন্ন জনের বাড়িতে কেন্দ্রীয় এজেন্সি রেড চালাচ্ছে। আমার বাড়িতেও কেন্দ্রীয় এজেন্সি রেইড চালিয়েছিল। ওরা ভেনডিকটিভ অ্যাটিটিউড নিয়ে ওদের কাজ করুক। আমরা সততার পথে আছি সততার পথেই থাকবো। কেন্দ্রের বিজেপি সরকার কেন্দ্রীয় এজেন্সির ওপর নির্ভর করে থাকুক। আমরা বাংলার মানুষের পাশে আছি বাংলার মানুষকে সাথে নিয়েই থাকবো।

বাংলার মানুষ বিজেপিকে এরাজ্যে প্রত্যাখ্যান করেছে ভোট দেয়নি। তাই ওরা একাধিক কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা আটকে রেখেছে। বিভিন্নভাবে বাংলার বদনাম করার চেষ্টা করছে। কেন্দ্রীয় সরকারের সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতা সেফেস্ট সিটি তকমা পেয়েছে। অথচ সম্প্রতি কলকাতার সমালোচনা করে নোংরা আবর্জনার তত্ত্বকে সামনে এনে সমালোচনা করেছে। শহর কলকাতার মানুষ যথেষ্ট সচেতন হয়ে উঠেছে, আজ শহর কলকাতার তালা থেকে টালি যথেষ্ট সুন্দর ও পরিষ্কার হয়ে উঠেছে। আমরা কোনদিনই এয়ারপোর্ট থেকে শহর কলকাতায় আসার পথে দু’ধার পর্দা দিয়ে আড়াল করে রাখি না। কারণ বিগত বাম জমানার পর থেকে এ শহরকে সুন্দর করে সাজিয়ে তোলা হয়েছে। আবর্জনা মুক্ত করা হয়েছে। বরং দিল্লির জামা মসজিদ এলাকা সহ একাধিক এলাকা গুজরাটের বেশ কিছু এলাকা মুম্বাইয়ের প্রত্যন্ত এলাকাগুলিতে এখনো আবর্জনার স্থুপ হয়ে গিয়েছে সেগুলির দিকে ওদের চোখ পড়ে না। ফের কেন্দ্রকে নিশানা কলকাতার নেয়ার ফিরহাদ হাকিমের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × 5 =