দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করতে কলকাতা থেকে আনা হয় সি আই ডি স্কেচ বিশেষজ্ঞকে। সি আই ডি আঁকা স্কেচ ধরেই চিহ্নিত করে ছিনতায় এর ঘটনায় দুই দুষ্কৃতিকে গ্রেফতার করল বাঁকুড়ার জয়পুর থানার পুলিশ। ১ মাসের মধ্যে ছিনতায় এর ঘটনার কিনারা করল জয়পুর পুলিশ। ধৃতদের মঙ্গলবার তোলা হচ্ছে বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালতে। আদালতে ধৃতদের পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার আবেদন করছে জয়পুর পুলিশ।

১৫ নভেম্বর রাত্রি ১০ টা নাগাদ বাঁকুড়ার জয়পুরে একটি ঔষুধের দোকানে ক্রেতা সেজে দুই যুবক হানা দেয়। ঔষুধ কেনার পর বয়স্ক দোকানের মালিককে মারধর করে ক্যাসবাক্স থেকে টাকা নিয়ে চম্পট দেয় ওই দুই যুবক। এরপরেই জয়পুর থানায় চুরির অভিযোগ দায়ের করেন ঔষুধ দোকানের মালিক। ঘটনার তদন্ত শুরু করে জয়পুর থানার পুলিশ। স্থানীয় দোকানের সিসি ক্যামেরা দেখে দুই ছিনতায় বাজের শনাক্ত করনের কাজ শুরু করে জয়পুর পুলিশ। তাতে দুষ্কৃতিদের শনাক্ত করন করতে বেগ পেতে হয় পুলিশ কে। পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, ঔষুধ ব্যবসায়ীর কাছ থেকে যুবকদের বিবরন নিয়ে কলকাতা থেকে সি আই ডি স্কেচ বিশেষজ্ঞ স্কেচ এঁকে দুষ্কৃতিদের শনাক্ত করে সোমবার রাতে গ্রেফতার করা দুই দুষ্কৃতিকে। ঔষধ ব্যবসায়ীকে ডেকে এনে ওই দুই দুষ্কৃতির শনাক্তও করা হয়। পুলিশ সুত্রে জানা গেছে ধৃতরা জয়পুর এলাকার বাসিন্দা। ওই দোকান থেকে তারা ১৬ হাজার টাকা ছিনতায় করে এবং ব্যবসায়ীর মোবাইল। জয়পুর পুলিশ ধৃতদের গ্রেফতার করে ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার করে সাড়ে চার হাজার টাকা এবং ব্যবসায়ীর মোবাইল। ধৃতদের মঙ্গলবার তোলা হয় বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালতে। ধৃতদের নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার আবেদন করছে জয়পুর পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 − one =