মালদহের অ্যাম্বুলেন্স চালকেরা প্রায় এক বছর ধরে পাচ্ছেন না কোন বেতন! যার জেরে আত্মহত্যার অভিনয়ের পথ বেছে নিতে বাধ্য হয়েছিলেন পুরাতন মালদার মৌলপুর গ্রামীণ হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স চালকদের। যদিও ঘটনা দিন কয়েকের আগে। হাসপাতালের মূল প্রবেশপথে দেখা গেল অ্যাম্বুলেন্স চালক অ্যাম্বুলেন্সের ওপর ওঠে গলায় দড়ি দিয়ে গেটের সাথে ঝুলে রয়েছেন দেখে বোঝার কোন উপায় নেই মনে হচ্ছে যেন আত্মহত্যা করেছেন। তবে এটি আত্মহত্যা নয় অ্যাম্বুলেন্স চালকেরা বাধ্য হয়ে আত্মহত্যা করতে পারবেন বলে জানা গিয়েছে।

এদিকে, এই অভিনব প্রতিবাদে অ্যাম্বুলেন্স চালকেরা সামিল হয়েছিলেন দিন কয়েক আগেই। তবে আত্মহত্যার অভিনয়ের ঘটনা রীতিমতো সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ায় তুমুল উত্তেজনা ছড়িয়েছে মালদা জেলা স্বাস্থ্য ভবনে।
পাশাপাশি এই ঘটনায় এক অ্যাম্বুলেন্স চালক জানান, তারা দিন আনে দিন খায় তবে হাসপাতাল থেকে তাদের চুক্তি থাকে এক বছরের সে মতো অবস্থায় তাদেরকে সঠিক বেতন দেওয়ার কথা। কিন্তু মৌলপুর গ্ৰামীন হাসপাতালের বিরুদ্ধে মূলত যেটা অভিযোগ তাদের পারিশ্রমিক সঠিক বেতন দিচ্ছেন না যার ফলে অ্যাম্বুলেন্স চালকেরা সর্বস্ব হারা হয়ে পড়েছেন। যার কারণে বাধ্য হয়ে অনেকে আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছেন। যদিও এই ঘটনার প্রসঙ্গে হাসপাতালের ব্লক মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

5 × 5 =